Tista Voice.com উড়ো কথায় নয়, তথ্যানুসন্ধানে ছুটে যায়..
ঢাকাশনিবার , ২৩ এপ্রিল ২০২২
  1. অর্থনীতি
  2. আইন-আদালত
  3. আন্তর্জাতিক
  4. একুশে বইমেলা
  5. কৃষি ও প্রকৃতি
  6. ক্যাম্পাস
  7. খেলাধুলা
  8. গণমাধ্যম
  9. জবস
  10. জাতীয়
  11. জোকস
  12. তথ্যপ্রযুক্তি
  13. দেশজুড়ে
  14. ধর্ম
  15. নারী ও শিশু

ইউএনও’র অফিস সুপারের দুর্নীতির ভিডিও ভাইরাল

এবি সিদ্দিক
এপ্রিল ২৩, ২০২২ ৯:৪৯ অপরাহ্ণ
Link Copied!

ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান, মেম্বারদের কাছ থেকে প্রকাশ্যে ঘুষ নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে লালমনিরহাটের পাটগ্রাম উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) অফিস সুপার শৈলেন্দ্রনাথ রায়ের বিরুদ্ধে।

সোমবার (১৮ এপ্রিল) এঘটনার একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হলে এলাকায় তোলপাড় সৃষ্টি হয়। খোদ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার অফিসে ঘটে যাওয়া এমন ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন ভুক্তভোগীরা। তাদের অভিযোগ, ইউএনও‘র অফিস সুপার শৈলেন্দ্রনাথ রায় প্রকাশ্যে চা-নাস্তা খাওয়ার কথা বলে উপজেলার সব মেম্বার, চেয়ারম্যানের সম্মানি ভাতা থেকে ৫০ থেকে ১০০ টাকা করে কেটে নিচ্ছেন। যা এর আগেও যিনি দায়িত্বে ছিলেন তিনিও করেছেন।

 

 

সেখানে দেখা যায়, শৈলেন্দ্রনাথ রায় প্রত্যেককে বেতনের টাকা দেওয়ার সময় নিজে থেকে স্ট্যাম্প বাবদ ১০ টাকার বদলে চা-নাস্তার খাওয়ার জন্য ৫০ টাকা করে দাবি করেন। এসময় শৈলেন্দ্রনাথকে জিজ্ঞেস করলে তিনি বলেন, টাকা লাগবে না, আমি চাইনি। কিন্তু পরক্ষণে উপস্থিতি ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) সদস্যরা দাবি করেন, তিনি ৫০ টাকা করে চেয়েছেন এবং আমরা সেই টাকা দিয়েছিও। কিন্তু এখন তিনি বিষয়টি অস্বীকার করছেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার অফিসে দীর্ঘদিন ধরে এভাবে দুর্নীতি হয়ে আসছে। প্রত্যেককে সম্মানি টাকা নেওয়ার সময় সঙ্গে টাকাও দিতে হয়। এ বিষয়ে জানতে চাইলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সাইফুর রহমান বলেন, আমি ভিডিওটা দেখেছি। আসলে স্ট্যাম্প বাবদ ১০ টাকা ছাড়া অতিরিক্ত টাকা নেওয়ার সুযোগ নেই। বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

এই সাইটে নিজম্ব নিউজ তৈরির পাশাপাশি বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবর সংগ্রহ করে সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি। তাই কোন খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো।বিনা অনুমতিতে এই সাইটের সংবাদ, আলোকচিত্র অডিও ও ভিডিও ব্যবহার করা বেআইনি।